ইউটিউব এসইও টিউটোরিয়াল।


বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম

অবশ্যই সম্পুর্ণ লেখাটি পড়বেন,
সম্পুর্ণ লেখাটি পড়লে বুঝতে সুবিধা হবে।

গুগলের বৃহত্তম একটি অংশ হচ্ছে ইউটিউব।আজকের দিনে দেশের হাজারো বেকার ইউটিউবে ক্যারিয়ার গড়ছে।আবার কেউ কেউ ইউটিউব থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিচ্ছে। মুখ ঘুরিয়ে নেয়ার মূল কারন হচ্ছে প্রত্যাশার চেয়ে সফলতা না পাওয়া।

আমরা প্রথমে ভাবি,ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে হাজার-হাজার,লাখ-লাখ ভিউ পাবো।কিন্তু পাই না। দু-দিন পরেই বলতে শুরু করি "ইউটিউব ভালো না,ইউটিউব খারাপ"।ইউটিউবে ভিউ না পাওয়ার মূল কারন হচ্ছে ভালো করে Seo না করা। প্রথমেই এসইও সমন্ধে কিছু আলোচনা করে নেই। Youtube seo bangla tutorial

Seo কি?

এসইও হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।

Seo কত প্রকার?

এসইও ২ প্রকার। যথা:
  1. অন পেজ অপটিমাইজেশন।
  2. অফ পেজ অপটিমাইজেশন।

অন পেজ অপটিমাইজেশন কি?

ইউটিউব চ্যানেল এর ভেতর যে কাজ গুলা থাকে তাকে অন পেজ অপটিমাইজেশন বলে।

অফ পেজ অপটিমাইজেশন কি?

ইউটিউব চ্যানেল এর বাইরে যে কাজ গুলা থাকে তাকে অফ পেজ অপটিমাইজেশন বলে।

ইউটিউব অন পেজ অপটিমাইজেশনঃ

  • Channel name: ইউটিউব চ্যানেল এ এমন একটি নাম দিন যাতে ভবিষ্যৎ এ আর পরির্বতন না করা লাগে।এতে আপনার চ্যানেল এর দর্শকেরা সহজেই আপনাকে সার্চ করে পেতে পারে। আপনি যে রকম ভিডিও তৈরি করবেন তার সাথে মিল রেখে চ্যানেল এর নাম দিন।যেমন :আপনি ফোন রিভিউ নিয়ে ভিডিও তৈরি করেন, আপনি চ্যানেল এর নাম   "bd phone review" দিলেন।
  • Channel Keyword: আপনার ইউটিউব চ্যানেলে টপিক রিলেটেড কিওয়ার্ড ব্যবহার করুন। কিওয়ার্ড হচ্ছে এসইও এর প্রধান একটি কাজ। ভালো মানের কিওয়ার্ড পেতে কিওয়ার্ড রিসার্চ করুন। আপনার চ্যানেল যদি নতুন হয়ে থাকে তাহলে বড় ধরনের কিওয়ার্ড ব্যবহার করুন।
  • Channel Art: দর্শকদের অাকৃস্ট করার জন্য  চ্যানেল অার্ট খবই প্রয়োজনীয়। সুন্দর একটি লোগো ও কভার ফটো দিন। যা দেখে দর্শকেরা  অাকৃস্ট হয়।
  • Video quality: ইউটিউবে ভালো মানের  ভিডিও এমনিতেই জনপ্রিয় হয়ে উঠে। সব সময় চেস্টা করুন, ভালো মানের  কনটেন্ট দিতে। ভিডিও রেজুলেশন যত বেশি দিতে পারবেন তত ভালো।
  • Thumbnail: থাম্বনাইল হলো ভিডিও এর ক্লিক করার আগে যে ফটো টা দেখা যায় সেটাই। এমন একটি থাম্বনাইল দিন যাতে ভিডিটির মেইন কিছু ইনফোরমেশন দিন।যত ভালো থাম্বনাইল দিতে পারবেন তত ক্লিক পড়ার সম্ভবনা থাকে।
  • Title: এমন একটি টাইটেল দিন যেন টাইটেল টা প্রশ্নবোধক হয়। টাইটেলে কিছু কিওয়ার্ড রাখার চেস্টা করুন।
  • Discription: বড় করে বিবরন দেয়ার চেস্টা করুন। বিবরনের প্রথমে টাইটেলের কিছু অংশ ডুকিয়ে দিন। বিবরনে কিছু কিওয়ার্ড রাখার চেস্টা করুন।
  • Tag: ভালো মানের ট্যাগ  ব্যবহার করুন।
  • Category: সঠিক ক্যাটাগরি নির্বাচন  করুন।
  • add-ons: Tubebuddy add-ons ব্যবহার করুন। এতে ভালো সুবিধা পাবেন।
  • Watch time: দর্শকদের ভিডিওটি পুরো দেখতে বলুন। ভিডিওতে ওয়াচ টাইম বেশি থাকলে ভিডিও Rank করে।
  • Like & Comment: দর্শকদের লাইক কমেন্ট করতে বলুন। ভিডিও rank করার ক্ষেত্রে লাইক কমেন্ট গুরুত্বপূর্ণ।
  • ইউটিউব অফ পেজ অপটিমাইজেশনঃ

    • Share : বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিও শেয়ার করুন। যেমন: ফেসবুক,গুগল প্লাস,টুইটার ইত্যাদি। 
    • imbed : বিভিন্ন সাইটে imbed করে ভিডিও শেয়ার করুন। এতে ভালো পরিমাণ ভিউ পাবেন।
    পোস্টটি শেয়ার করে প্রিয়জনদের জানিয়ে দিন। না বুুুুঝলে কমেন্ট করুন।
    বিঃদ্রঃ এই ব্লগে বিভিন্ন কনটেন্ট,ভিডিও ও ছবি বিভিন্ন ওয়েবসাইট/বই থেকে নেওয়া হতে পারে।আমরা আপনার মূল্যবান কনটেন্ট,অন্যের উপকারের লক্ষে শেয়ার করে থাকি।তবে আপনার যদি কোনও আপত্তি থাকে,তাহলে আমাদের কাছে অভিযোগ করুন।আপনার কনটেন্ট সরিয়ে ফেলা হবে।

    0 Response to "ইউটিউব এসইও টিউটোরিয়াল। "

    Post a Comment

    Contact Form

    Name

    Email *

    Message *