bkash
চিত্রঃ বিকাশ।  
বিকাশ পিন লক হলে সহজে আনব্লক করার উপায়।

এই সমস্যাটি আমি নিজেও সম্মুখীন হয়েছিলাম।
তাই আজ আমি এই সমস্যাটি কিভাবে সমাধান করা যায় তা নিয়ে বিস্তারিতভাবে লিখবো।
এই সমস্যাটিতে যখন কেউ পড়ে তখন সে চিন্তিত হয়ে পড়ে🤔।
কেননা এটি আর্থিক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত।
বিশেষ করে আমি নিজেও চিন্তিত হয়ে পড়েছিলাম😀।
চিন্তা করার দরকার নেই।
এটি সমধান করা সহজই বটে।
বিকাশ মূলত কিছু কর্মকাণ্ডের জন্য পিন ব্লক করে।
যেমনঃবার বার ভুল পিন দেয়া,অল্প সময়ে বেশি বেশি রিচার্জ করা ইত্যাদি।

Bkash Pin লক হলে করণীয়


প্রথমেই আপনার ভোটার আইডি কার্ডটি হাতে রাখুন।যদি মা/বাবার আইডি কার্ড দিয়ে বিকাশ খুলে থাকেন তাদের ভোটার আইডি কার্ড হাতে রাখুন।
তারপর কিছু তথ্য মাথায় রাখতে হবে।
যেমনঃ আপনার bkash account এ কত টাকা ছিলো,আগের দু-একটি লেনদেন কথা।
এরপর বিকাশ হেল্পলাইন(১৬২৪৭) এ কল দিন।
অবশ্যই যার ভোটার আপডি কার্ড দিয়ে একাউন্ট করেছেন তাকে দিয়ে কথা বলান।
কল ধরার পর আপনাকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হবে।আপনাকে সঠিক উত্তর দিতে হবে।
যেমনঃ আপনার বাবা-মার নাম কি?, জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার,জন্ম সাল কত?
এসব প্রশ্নের উত্তর আইডি কার্ডের উপর ভিত্তি করেই উত্তর দিতে হবে।
বিকাশ দিয়ে কখন কি করেছন? এই রকম প্রশ্নও করবে।

সব প্রশ্নগুলি সঠিক উত্তর দিতে পারলেই তারা আপনার বিকাশ একাউন্ট ঠিক করে দিবে।



আশা করি আপনি বিষয়টি বুজত‌ে পেরেছেন। ভালো লাগলে শেয়ার করুন।না বুঝলে কমেন্ট করুন।
বিঃদ্রঃ এই ব্লগে বিভিন্ন কনটেন্ট,ভিডিও ও ছবি বিভিন্ন ওয়েবসাইট/বই থেকে নেওয়া হতে পারে।আমরা আপনার মূল্যবান কনটেন্ট,অন্যের উপকারের লক্ষে শেয়ার করে থাকি।তবে আপনার যদি কোনও আপত্তি থাকে,তাহলে আমাদের কাছে অভিযোগ করুন।আপনার কনটেন্ট সরিয়ে ফেলা হবে।
insurance bd,Online education,insurance,Online education, bkash,nagod,mobile banking bd