bkash merchant
Bkash Merchant


bkash merchant

সাধারণত merchant এর অর্থ হচ্ছে বনিক, ব্যবসায়ী, ব্যাপারী, সত্তদাগর ইত্যাদি। 

হয়তো আপনি এখন বুঝতে পারবেন BKash marchant account কাদের জন্য উপযুক্ত।

বর্তমানে বাংলাদেশের শহরাঞ্চলের অধিকাংশ ব্যবসায়ী মার্চেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করে থাকে। 

মুদি মাল কিংবা ওষুধ ক্রয় করার পর আপনি QR Code স্কান করে বিকাশ থেকে পেমেন্ট করলেন। এতে
এখানে,
সম্ভবত আপনার একাউন্টটি ছিলো পার্সোনাল একাউন্ট অন্যদিকে দোকানির ছিলো মার্চেন্ট একাউন্ট।

bKash merchant Account charge

ক্যাশ আউট চার্জ  আপনার ব্যবসার ধরণ, প্রকৃতি, লেনদেন এর উপর ভিত্তি করে নির্ধারণ করা হয়। এটি আপনি Bkash marchant একাউন্ট খোলার পরই জানতে পারবেন।

bkash merchant account benefits

মার্চেন্ট একাউন্ট এর মাধ্যমে আপনি গ্রাহকদের কাছ থেকে পেমেন্ট রিসিভ সুবিধাটি উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়া, যে সুবিধা সমূহ আপনি মার্চেন্ট একাউন্টে পাবেনঃ

  •  সহজেই টাকা রিসিভ করতে পারবেন
  • নিরাপদে লেনদেন সম্পন্ন করতে পারবেন
  • পেমেন্ট এর জন্য লাভজনক কমিশন রিসিভ করতে পারবেন
  • বিভিন্ন অফার এবং ক্যাম্পেইন উপভোগ করতে পারবেন

বিকাশ কাস্টমার এর সংখ্যা প্রতিদিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে। আপনিও মার্চেন্ট হবার মাধ্যমে এই সাফল্যের অংশীদার হতে পারবেন। 

bkash merchant limit

এ বিষয়ে আমরা বিকাশের সাথে যোগাযোগ করেছি। তারা বলেছে এবিষয়ে তারা তখনই বলতে পারবে যখন আপনি মার্চেন্ট একাউন্ট করবেন।

মার্চেন্ট একাউন্ট খুলতে যা যা প্রয়োজনঃ

  1. ট্রেড লাইসেন্সের কপি (মেয়াদসহ)
  2. টিন (TIN) সার্টিফিকেট
  3.  ইউটিলিটি বিল (বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস) এর কপি
  4. ব্যাংক বিবরণী (একাউন্ট নাম, নাম্বার, বাংকের নাম, ব্যাংক শাখার নাম)
  5.  আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্ট কার্ড/ড্রাইভিং লাইসেন্স/পাসপোর্ট/অনলাইন এনআইডি প্রিন্ট কপি
  6.  আবেদনকারীর ২ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি
  7.  সার্টিফিকেট অফ ইনকর্পোরেশন (লিমিটেড কোম্পানির ক্ষেত্রে)
  8.  মেমোরেন্ডাম অফ অ্যাসোসিয়েশান (লিমিটেড কোম্পানির ক্ষেত্রে)
  9.  পার্টনারশিপ সমর্থনপত্র (পার্টনারশিপ ফার্মের ক্ষেত্রে)
  10.  মার্চেন্ট প্লাসের জন্য ১.৫% থেকে ২% সার্ভিস চার্জ প্রযোজ্য।

এছাড়া, প্রতিষ্ঠানের ধরনের ওপর নির্ভর করে আরও কিছু প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে হতে পারে। উপরের শর্তগুলো পূরণ হলে আপনি মার্চেন্ট হবার জন্য আবেদন পাঠাতে পারেন। শর্ত গুলো পূরণ হলে নিচের তথ্যগুলো উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ করছি। 

  • যিনি মার্চেন্ট হতে চান তার নামঃ
  • যোগাযোগের নাম্বারঃ
  • ফটো আইডি নাম্বার (জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্ট আইডি/পাসপোর্ট/ড্রাইভিং লাইসেন্স/অনলাইন এনআইডি কপি):
  • ট্রেড লাইসেন্স নাম্বারঃ
  • Point-of-sale (POS) মেশিনের উপস্থিতি (আছে/নেই):
  • মাসিক লেনদেন এর পরিমাণ (আনুমানিক)ঃ
  • ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের নামঃ
  • ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের ধরনঃ
  • ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের পূর্ণ ঠিকানাঃ

বিকাশ মার্চেন্ট হওয়ার অনুরোধ পাঠাতে ভিজিট করুন নিচের লিংকটিতেঃ https://www.bkash.com/bn/i-want-register/send-registration-request

আপনার দেয়া তথ্য গুলো যথাযথ হলে সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে আপনার সাথে যোগাযোগ করা হবে।

bkash merchant login


ভিডিওঃ






bKash Merchant App




বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপের মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে, দ্রুত ও সহজে আপনার ব্যবসায়িক পেমেন্ট গ্রহণ এবং ট্র্যাক করতে পারবেন। এর মাধ্যমে এক জায়গায় পাওয়া যায় সাম্প্রতিক লেনদেন ও লেনদেনের বিস্তারিত। এখন মার্চেন্ট অ্যাপ থেকে আপনার মার্চেন্ট কিউআর কোড দেখিয়ে যেকোনো সময়, যেকোনো স্থানে পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারবেন।

বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপের বৈশিষ্ট্য

সহজ অনবোর্ডিং
বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপে সহজে রেজিস্ট্রেশন এবং লগইন করা যায়। অ্যাপটি ডাউনলোড করার পরে আপনার বিকাশ মার্চেন্ট একাউন্ট নাম্বার দিন। ওটিপি যাচাই হয়ে যাওয়ার পর পিন নাম্বার দিন। এরপর আপনি মার্চেন্ট অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন।

তাৎক্ষণিক পেমেন্ট নোটিফিকেশন
কোনো পেমেন্ট গ্রহণের পর আপনার মার্চেন্ট অ্যাপে তাৎক্ষণিক পেমেন্ট নোটিফিকেশন পেয়ে যাবেন। আপনার সুবিধার জন্য মোবাইলের লক-স্ক্রিনেও একটি নোটিফিকেশন দেখা যাবে।

যেকোনো সময় পেমেন্ট গ্রহণ
আপনার মার্চেন্ট অ্যাপ থেকে যেকোনো বিকাশ গ্রাহককে আপনার মার্চেন্ট QR কোডটি দেখান। যেকোনো সময়, যেকোনো স্থানে পেমেন্ট গ্রহণ করুন এবং প্রয়োজনে মার্চেন্ট QR কোড ডাউনলোড করে তা প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবহার করুন।

দ্রুত ব্যালেন্স দেখুন
আপনি যখন খুশি মার্চেন্ট অ্যাপ হোম স্ক্রিনে "ব্যালেন্স দেখতে ট্যাপ করুন" বাটন ট্যাপ করে আপনার মার্চেন্ট একাউন্টের ব্যালেন্স জেনে নিতে পারবেন।

সর্বশেষ লেনদেন সম্পর্কে জানুন
সর্বশেষ ১০টি লেনদেন সম্পর্কে তারিখ, সময়, পরিমাণ, একাউন্ট নাম্বার, চার্জ, ট্রানজেকশন আইডি, রেফারেন্স এবং ক্যাশব্যাক ও অন্যান্য তথ্যসহ বিস্তারিত জানুন অ্যাপ হোম স্ক্রিন থেকেই।

গত ৩০ দিনের লেনদনের বিবরণ
আপনার লেনদেনের বিস্তারিত তথ্য জেনে ব্যবসায় তা কাজে লাগাতে আপনি সহজেই মার্চেন্ট অ্যাপের লেনদেনসমূহ ট্যাব থেকে লেনদেনের বিস্তারিত দেখতে পারবেন এবং গত ৩০ দিনের লেনদেনের তথ্য চেক করতে পারবেন। লেনদেনের তথ্য ‘ইন / আউট/কাউন্টার’ অপশন ব্যবহার করে ফিল্টার করা যায়।

লেনদেন খুঁজুন
যেকোনো নির্দিষ্ট লেনদেন দ্রুত খুজে বের করুন । অ্যাপের হোম স্ক্রিনে খুঁজুন আইকনটিতে ট্যাপ করে ট্রানজেকশন আইডি বা গ্রাহকের সম্পূর্ণ বিকাশ একাউন্ট নাম্বার লিখে যেকোনো নির্দিষ্ট লেনদেন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য খুঁজে নিন।

একাউন্ট স্টেটমেন্ট
প্রতি মাসের শেষে ই-মেইলের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার মাসিক লেনদেনের স্টেটমেন্ট গ্রহণ করুন। পর্যায়ক্রমিক স্টেটমেন্ট অ্যাপ থেকেও তৈরি করা যায়।

এজেন্ট ক্যাশ আউট
এজেন্ট কিউআর কোড স্ক্যান করে বা এজেন্ট নাম্বার টাইপ করে সরাসরি এজেন্ট পয়েন্ট থেকে ক্যাশ আউট করতে পারবেন।

পে বিল
মার্চেন্টগণ যে কোনো গ্রাহকের পক্ষে মার্চেন্ট অ্যাপ থেকে ইউটিলিটি বিল (বিদ্যুৎ, গ্যাস, পানি, ইন্টারনেট) প্রদান করতে পারেন এবং তাৎক্ষণিক পে বিল নোটিফিকেশন এবং ডিজিটাল রিসিট গ্রহণ করতে পারেন।

কাউন্টার পেমেন্ট গ্রহণ
আপনার মার্চেন্ট অ্যাপ থেকে একাধিক কাউন্টার তৈরি করে এবং কাউন্টার কিউআর কোড দেখিয়ে বিকাশ পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারবেন। এভাবে একটি হ্যান্ডসেটের উপর নির্ভরশীলতা দূর করা সম্ভব।

মার্চেন্ট পেমেন্ট
মার্চেন্টের কিউআর কোড স্ক্যান করে বা মার্চেন্ট একাউন্ট নাম্বার টাইপ করে নির্বাচিত বিকাশ মার্চেন্টরা অন্য মার্চেন্টকে পেমেন্ট করতে পারবেন।

সেন্ড মানি
গ্রাহকের কিউআর কোড স্ক্যান করে বা গ্রাহকের একাউন্ট নাম্বার টাইপ করে পার্সোনাল রিটেইল একাউন্ট ব্যবহারকারীরা খুব সহজেই অন্য বিকাশ গ্রাহককে সেন্ড মানি করতে পারবেন। এই ফিচারটি শুধুমাত্র পার্সোনাল রিটেইল একাউন্ট ব্যবহারকারীদের জন্য প্রযোজ্য হবে।

লেনদেন বাতিল
এখন থেকে মার্চেন্ট খুব সহজেই যেকোনো বিকাশ গ্রাহকের পেমেন্ট নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বাতিল করতে পারবেন। এতে গ্রাহকের টাকা পুনরায় গ্রাহকের একাউন্টে ফেরত দেওয়া সম্ভব হবে। এর ফলে মার্চেন্ট এবং গ্রাহক উভয় পক্ষেই ভুল পেমেন্ট এবং পণ্য ফেরত সংক্রান্ত নানাবিধ সমস্যার সমাধান হবে।

মতামত
বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ ব্যবহার করতে গিয়ে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলে বা মার্চেন্ট সার্ভিস নিয়ে আপনার কোনো মন্তব্য থাকলে এই মতামত ফর্মের সাহায্যে অবহিত করতে পারবেন।

বিকাশ বিজনেস ড্যাশবোর্ডে সাইন আপ
এখন বিকাশ মার্চেন্ট অ্যাপ থেকেই খুব সহজেই বিকাশ বিজনেস ড্যাশবোর্ডে সাইন আপ করতে পারবেন।

বিঃদ্রঃ এই ব্লগে বিভিন্ন কনটেন্ট,ভিডিও ও ছবি বিভিন্ন ওয়েবসাইট/বই থেকে নেওয়া হতে পারে।আমরা আপনার মূল্যবান কনটেন্ট,অন্যের উপকারের লক্ষে শেয়ার করে থাকি।তবে আপনার যদি কোনও আপত্তি থাকে,তাহলে আমাদের কাছে অভিযোগ করুন।আপনার কনটেন্ট সরিয়ে ফেলা হবে।
insurance bd,Online education,insurance,Online education, bkash,nagod,mobile banking bd